‘সেশনজট নিরসন ও দ্রুত পরীক্ষা’ সহ ৫দফা দাবিতে মানববন্ধন।

 

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি।

সেশনজট নিরসন ও দ্রুত পরীক্ষাসহ ৫দফা দাবিতে মানববন্ধন করেছে টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, জোরারগঞ্জ, চট্টগ্রাম-এর শিক্ষার্থীরা। আজ বুধবার (২৬ জানুয়ারী) সকালে ক্যাম্পাস প্রাঙ্গনে বুটেক্স অধিভুক্ত সকল টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের সম্মিলিত অংশ হিসেবে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় মানববন্ধনরত শিক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের নিকট নিম্নলিখিত দাবীসমূহ পেশ করেঃ ১. করোনা মহামারী চলাকালীন সময়ে যে সেমিস্টার লস হয়েছে তা পুষিয়ে নিতে চার মাসে সেমিস্টার করে দ্রুত রিকোভারি প্লান করা। ২. রেজাল্ট, রুটিন ও অন্যান্য কার্যক্রম দ্রুত প্রকাশ করা। ৩. ২য় ও ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থীদের জুলাই এর মধ্যেই লেভেল ০২ টার্ম ০২ এবং লেভেল ০৩ টার্ম ০২ এর ফাইনাল পরিক্ষা শেষ করা। ৪. সেমিস্টারের রেজাল্ট প্রকাশিত করার পরপরেই মার্কশিট প্রদান করা যাতে পরিক্ষার্থীরা ইমপ্রুভমেন্ট পরিক্ষা দিতে পারে এবং প্রতি সাব্জেক্টে ইমপ্রুভমেন্ট পরীক্ষা ও রিটেক পরীক্ষার ফি অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় এর সাথে সামজস্য রেখে ২০০-৩০০ টাকায় নিয়ে আসা। ৫. সব কলেজের অধ্যক্ষসহ একজন করে শিক্ষক প্রতিনিধি নিয়ে একটি স্বতন্ত্র বোর্ড গঠন করা, যাতে কলেজগুলোর পরিক্ষার সময়সূচী, রেজাল্ট, মার্কশীট ও অন্যান্য বিষয়ে বোর্ড দ্রুত এবং কার্যকর ও চূড়ান্ত পদক্ষেপ নিতে তৃতীয় কোনো পক্ষের নগ্ন হস্তক্ষেপ না থাকে। শিক্ষার্থীরা আরো জানায় দেশের সাতটি টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত। ফলে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কলেজগুলোকে চলতে হচ্ছে। করোনা শুরুর পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে না। এতে প্রত্যেক শিক্ষার্থী প্রায় দুই বছরের সেশনজটে পড়েছে। অন্যদিকে যেসব পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে, সেগুলোর ফল প্রকাশ করা হচ্ছে না। এতে শিক্ষার্থীরা পরবর্তী পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিতে পারছেন না। ফলে শিক্ষার্থীদের জীবন থেকে মূল্যবান সময় হারিয়ে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতিতে আগামী সাত দিনের মধ্যে শিক্ষার্থীরা তাঁদের পাঁচ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবি তুলেছেন। দাবি না মানা হলে তাঁরা ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে কঠোর আন্দোলনে নামবে বলে জানিয়েছে।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*