সংবাদ শিরোনামঃ

শেরপুর সীমান্তের মায়াঘাষি গ্রামে আরো একটি বন্য হাতির মৃত্যুদেহ পাওয়া গেছে …

এম শাহজাহান মিয়া, ঝিনাইগাতী, শেরপুর প্রতিনিধিঃ

শেরপুরের গারো পাহাড়ে আরো একটি বন্যহাতির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ১৯ নভেম্বর শুক্রবার ভোরে নালিতাবাড়ী উপজেলার পানিহাতা সীমান্তের মায়াঘাষি থেকে বন্যহাতির মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। বনবিভাগ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, শুক্রবার উদ্ধার হওয়া বন্যহাতিটি মাদি, বয়স আনুমানিক ২ বছর এবং কেবল দাঁত উঠতে শুরু করেছে। গত কয়েকদিন ধরে খাদ্যের সন্ধানে পানিহাতা এলাকায় পাহাড় থেকে বন্যহাতির দল লোকালয়ে নেমে এসে ফসলের ক্ষেতে হানা দিয়ে আসছিলো। এনিয়ে ১০ দিনের ব্যবধানে শেরপুরের গারো পাহাড় সীমান্তে ২টি হাতির মরদেহ উদ্ধারের ঘটনা ঘটলো। এর আগে গত ৯ নভেম্বর শ্রীবরদী উপজেলার মালাকোচা এলাকায় বৈদ্যতকি জিআই তারে জড়িয়ে মারা যাওয়া আরেকটি বন্যহাতির মরদেহ উদ্ধার হয়েছিলো। ওই ঘটনায় ইতিমধ্যে ৪ জনকে আসামী করে মামলা করা হয়েছে। এ হাতিটি আসলে কি কারণে মারা গেছে তা এখনো জানা যায়নি। তবে ময়না তদন্ত করে রিপোর্ট পাওয়া গেলে প্রকৃত কারণ জানা যাবে। বনবিভাগের বন্যপ্রাণী ও জীব বৈচিত্র সংরক্ষন কর্মকর্তা সুমন সরকার জানান, হাতির মৃত্যুর কারণ এখনো জানা যায়নি। ময়না তদন্ত করে রিপোর্ট পাওয়া গেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চত করা সম্ভব হবে। নালিতাবাড়ীা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হেলেনা পারভীন হাতি মৃত্যুর ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চত করে বলেন, মৃত হাতির ময়না তদন্তের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ময়না তদন্তশেষে বলা যাবে কি কারণে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*