সংবাদ শিরোনামঃ

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে পুলিশের হাতে বলাৎকারকারী মিরা আটক।

আনোয়ার হোসেন আরিফ, ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম:

সহকারী পুলিশ সুপার (নাগেশ্বরী সার্কেল) সুমন রেজা এবং নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ নবিউল হাসান এর প্রচেষ্টায় পুর্ব সুখাতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে অভিযুক্ত মিনহাজুল ইসলাম মিরাকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। জানা গেছে, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার নেওয়াশী ইউনিয়নের চাকেরকুটি নতুন বাজার গ্রামের হতদরিদ্র আবুল কাশেমের পুত্র ও পুর্ব সুখাতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র কে পাশ্ববর্তী প্রভাবশালী আব্দুল আজিজ কারীর পুত্র ও নতুন বাজার টি এম ফার্মাসির প্রোঃ মিনহাজুল ইসলাম মিরা গত ২৩ জুলাই রাতে তার বাড়িতে থাকার কথা বলে ডেকে নিয়ে কৌশলে যৌন উত্তেজনা ঔষধ সেবন করিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে বলাৎকার করেন। মিরার বাড়ি থেকে রাত ১১টায় ওই ছাত্র পালিয়ে বাড়িতে এসে বিষয়টি তার পরিবারকে জানায় এবং ভুক্তভোগী ছাত্র ভীষণ অসুস্থ হয়ে পড়ে। অতঃপর ভুক্তভোগী ছাত্রকে নিয়ে তার বড় ভাই আশরাফুল আলম নাগেশ্বরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে রোগীর অবস্থা অবনতি হলে রাতেই কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠান এবং ২৭জুলাই পর্যন্ত চিকিৎসা শেষে ওই ছাত্র বাড়িতে আসেন। অপরদিকে প্রভাবশালী মিরা ও তার পরিবারের ভয়ভীতি ও হুমকিতে ভুক্তভোগী ছাত্রের পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন এ বিষয়ে বিভিন্ন অনলাইনে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ হলে সহকারী পুলিশ সুপার (নাগেশ্বরী সার্কেল) সুমন রেজা এবং নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ নবিউল হাসান এর নজরে আসে এবং তাদের প্রচেষ্টায় অভিযুক্ত মিনহাজুল ইসলাম মিরা কে মধ্যে কুমুরপুর এলাকা থেকে গতকাল মঙ্গলবার রাতে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। আজ বুধবার মিরার বিরুদ্ধে শুধু নির্যাতন আইনে মামলা রুজু করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বিষয়ে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ নবিউল হাসান বলেন, সহকারী পুলিশ সুপার (নাগেশ্বরী সার্কেল) সুমন রেজা এর নির্দেশনা মোতাবেক পুর্ব সুখাতী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে অভিযুক্ত মিনহাজুল ইসলাম মিরা কে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*