সংবাদ শিরোনামঃ

মুরাদনগরে কৃষকের ফসলি জমি রক্ষার্থে পুলিশের অভিযানে তিনটি ড্রেজার মেশিন জব্দ।

সফিকুল ইসলাম, কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধি:

কুমিল্লার মুরাদনগরে কৃষকের ফসলি জমি রক্ষার্থে অভিযান শুরু করেছে মুরাদনগর থানা পুলিশ। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান ও মুরাদনগর থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা সাদেকুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে এ অভিযান শুরু করেন। অভিযানে অবৈধভাবে কৃষি জমি থেকে মাটি উত্তোলনের সময় ৩টি ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছে পুলিশ। রবিবার বিকেলে উপজেলার কামাল্লা ইউনিয়নের কামাচর বিল থেকে জব্দকৃত মেশিন তিনটি বাজেয়াপ্ত করা হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ড্রেজার মেশিনের মালিক ও শ্রমিকরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কামারচর গ্রামের মোবারক হোসেন ওই বিলে প্রথমে সামান্য একটু জমি ক্রয় করে। পরে সেই কৃষি জমি থেকে প্রভাব খাটিয়ে অবৈধ ড্রেজারের মাধ্যমে প্রায় ৩ বছর ধরে মাটি উত্তোলন করে আসছিল। স্থানীয় কৃষকদের অভিযোগ নাম মাত্র টাকা দিয়ে এরই মধ্যে আশ-পাশের প্রায় ১একর ফসলি জমির মাটি উত্তোলন করেছে মোবারক হোসেন নামের ওই ব্যাক্তি। স্থানীয় এক কৃষক জানায়, আমার জমির পাশে মোবারক প্রথমে একটু জমি কিনে পরে সেখানে ড্রেজার বসিয়ে মাটি উত্তোলন করতে থাকে। আমি বাধা দিলেও সে গ্রামের প্রভাবশালী হওয়ায় কিছুই করতে পারি নাই। কিছু দিন আগেও ধান কাটার সময় দেখছি আমার জমির প্রায় বিশ হাত দুরে মাটি আছে। কিন্তু আজ সকালে আইসা দেখি আমার জমির মাটিও কাটা শুরু করছে। বহুবার বিপদে পরে এই জমিটা বিক্রয় করতে চাইছিলাম কিন্তু কেউ নিতে চায়না, বলে তোমার জমির পাশে ড্রেজার চলে যে কোন মূহুর্তে জমি ভাইঙ্গা পরবো। আজ স্যার আপনাগোরে এই ড্রেজারটা তুলতে দেইখ্যা মনে হইলো আল্লায় আমার ডাক হুনছে। দোয়া করি আল্লাহ আপনাগো বাঁচাইয়া রাখুক। অভিযান পরিচালনা করা কালিন সময় মুরাদনগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান বলেন, ড্রেজার মেশিন পরিবেশ ও ফসলি জমির জন্য অত্যান্ত ক্ষতিকর, যার জন্য মুরাদনগর থানায় আজ প্রথমবারের মতো অভিযান শুরু করেছি। কুমিল্লা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বিপিএমবার স্যারের নির্দেশনায় মুরাদনগর থানা এলাকার কামারচন বিলে অভিযান পরিচালনা করে ৩টি অবৈধ ড্রেজার মেশিন জব্দ করেছি। ড্রেজার বিরোধী এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। মুরাদনগরের স্থানীয় সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ মহোদয় তিনি নিজেও ড্রেজারের বিরুদ্ধে অনেক সোচ্চার, তিনিও আমাদের ড্রেজারের বিরুদ্ধে শক্তভাবে পদক্ষেপ নিতে উৎসাহিত করছেন। এসময় মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সাদেকুর রহমান, এসআই সমীর ভট্টাচার্য্যসহ পুলিশের একটি টিম উপস্থিত ছিলেন।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*