সংবাদ শিরোনামঃ

অপেক্ষা নিহতদের মরদেহ নিতে স্বজনদের।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, দগ্ধ তিনজন জীবন-মরণ সন্ধিক্ষণে আছেন। আর বাকি দুজনকে দেওয়া হয়েছে সাধারণ শয্যায়। এ ছাড়া এ ঘটনায় বাকি আহতরা চিকিৎসা নিচ্ছেন ঢাকা মেডিকেলসহ বিভিন্ন হাসপাতালে।
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিটে জরুরি বিভাগের সামনে বিলাপ করছেন সোহাগী বেগম। পাশে নির্বাক চোখে তাকিয়ে তার নয় বছর বয়সী কন্যা মিম।
রোববার সন্ধ্যায় মগবাজার বিস্ফোরণে দগ্ধ মারা গেছেন সোহাগীর স্বামী আবুল কাশেম। দুই বছর আগে লোন নিয়ে কিনেছিলেন বাস, চালাতেন নিজেই। বিস্ফোরণের সময় বাসেই ছিলেন তিনি। সোহাগী বেগম জানান, টেলিভিশনে খবর দেখে ছুটে আসেন হাসপাতালে। সব হারিয়ে নিরুপায় তিনি।
এ বিস্ফোরণের মারা গেছেন কবি নজরুল কলেজের অনার্স শিক্ষার্থী মুস্তাফিজুর রহমান ও স্বপন মিয়া। লাশ গ্রহণের অপেক্ষায় তাদের স্বজনরাও। দুজনই চিকিৎসার জন্য মগবাজারে গিয়ে শিকার হন দুর্ঘটনার।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*