সংবাদ শিরোনামঃ

ঠাকুরগাঁওযের জেলা রেজিষ্ট্রোর অফিসের নির্মাণ কাজ শেষ, উদ্বোধনের অপেক্ষায়।

আল মামুন বালিয়াডাংগী উপজেলা প্রতিনিধি।

ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা রেজিষ্ট্রার অফিসের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। যে কোন সময় উদ্বোধনের অপেক্ষায়। গ পৌর শহরের আর্ট গ্যালারীতে গিয়ে দেখা যায়, জেলা রেজিষ্ট্রার অফিসের কাজ শেষের দিকে। ৪ তলাভিত বিশিষ্ট ৪-তলা ভবনটি নির্মাণ শেষে উদ্বোধন হলে রেজিষ্ট্রি কাজে নতুন গতি আসবে বলে মনে করছেন সবাইঠাকুরগাঁও গণপূর্ত বিভাগ সূত্রে জানা যায়, জেলা রেজিষ্ট্রার অফিস নির্মাণ কাজের জন্য প্রকল্পের নকশা অনুযায়ী ৪তলা ভিত বিশিষ্ট ৪ তলা ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঠাকুরগাঁওয়ে জেলা রেজিষ্ট্রার অফিসের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষের দিকে। গত ২০১৮ সালের ১৪ মে দেড় বছর মেয়াদকাল ধরে চুক্তি করা হয়। তবে করোনার কারনে মেয়াদকাল আরও বৃদ্ধির জন্য আবেদন করা হয় বলে জানা যায়। প্রকল্পের চুক্তি মূল্য ৫ কোটি ৭০ লাখ ৩১৬ টাকা। ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের প্রথম তলা ৫ হাজার ১৪৩ বর্গফুটের হবে। এতে গ্যারেজ, ব্যাংক বুথ, ভেন্ডর, ভিজিটর ওয়েটিং, মাতৃদুদ্ধ কক্ষ ইত্যাদি হবে। ৫ হাজার ১৪৩ বর্গফুটের দ্বিতীয় তলায় নকল নবীশ, অফিস, রেকর্ড রুম, চেম্বার, ডায়াস, সাব-রেজিষ্ট্রার এজলাস ইত্যাদি, ৫ হাজার ১৪৩ বর্গফুটের তৃতীয় তলায় সম্মেলন কক্ষ, অফিস রুম, জেলারেজিষ্ট্রার চেম্বার, ডায়াস, রেকর্ড রুম ইত্যাদি ও ৫ হাজার ১৪৩ বর্গফুটের চতুর্থ তলায় নকল নবীশ, রেকর্ড রুম, রেকর্ড ষ্টাফ কক্ষ, তালাশকারী, ডিজিটাল রেকর্ড কক্ষ ইত্যাদি। আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ঠাকুরগাঁও গণপূর্ত অধিদপ্তরের বাস্তবায়নাধীন র্নির্মাণ কাজটি ঢাকার সাভারের জিরানী বাজার রোডের মেসার্স সিকদার কন্সট্রাকশন এন্ড বিল্ডার্স করছে। ঠাকুরগাঁও গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাজিদার রহমান জানান, জেলা রেজিষ্ট্রার অফিসের নির্মাণ কাজ প্রায় সমাপ্ত হয়েছে। মেয়াদকাল দেড় বছরের থাকলেও করোনার কারনে নির্ধারিত সময়ে কাজ সমাপ্ত করা যায়নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হতে পারে বলে জানান তিনি। নতুন এ ভবনের উদ্বোধনের পর জেলা রেজিষ্ট্রার অফিসের কার্যক্রম শুরু হলে জনসাধারণের অনেক সুবিধা হবে। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর ঠাকুরগাঁও জেলা রেজিষ্ট্রার অফিস নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন করেন আ’লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন। কাজটি বাস্তবায়ন করছে ঠাকুরগাঁও গণপূর্ত বিভাগ।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*