সংবাদ শিরোনামঃ

তাহেরপুরে সুবর্ণা আক্তার মুক্তা নামে গ্রামের বাড়ি থেকে মেয়ের রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ।

মোঃ রনি আকন্দ সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জ জেলার অন্তর্ভুক্ত তাহিরপুরে কলেজ ছাত্রী সুর্বণা আক্তার মুক্তা গ্রামের বাড়ি হতে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোজ ছাত্রীর পিতা উপজেলা মাটিকাটা গ্রাম ও বড়ছড়া শুল্ক ষ্টেশনের কয়লা ব্যবসায়ী বর্তমানে বাদাঘাটের বাসিন্দা মক্কা টাউয়ারের মালিক আব্দুল কুদ্দুছ মেয়ের সন্ধান চেয়ে রবিবার রাত দেড়টার দিকে থানায় সাধারন ডায়রি (জিডি) করেছেন। তাহিরপুর থানায় জিডি নং ১১৮৬। তারিখ ৩০.০৫.২১। পারিবরীক ও থানা পুলিশ সুত্রে জানায়, করোনাকালীন সময়ে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় উপজেলা বাণিজ্যিক কেন্দ্র বাদাঘাটের চাউল পট্রির মক্কা টাওয়ারের পেছনে থাকা নিজ বাসা হতে রবিবার রাত ০৮ টার পর কলেজে পড়ুয়া এইএসসি প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সুবর্ণা আক্তার মুক্তা নিখোঁজ হন। সোমবার রাত ০৭টা ২৫ মিনিটে কলেজ ছাত্রীর পিতা আব্দুল কুদ্দুছ মিয়ার নিকট মেয়ে নিখোঁজ ও জিডি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন ,আমি এখন ব্যস্ত পরে কথা বলব। এদিকে থানায় জিডির পরপরই উপজেলা মোল্লাপাড়া এলাকার একই কলেজে পড়ূয়া আরো এক কলেজ শিক্ষার্থীকে হন্য হয়ে খুঁজছে পুলিশ। সোমবার দিনভর ওই কলেজ ছাত্র ও তার পিতার মুঠোফোনে একাধিবার কল করা হলে দুটি ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরবর্তীতে সুনামগঞ্জ শহরে থাকা তাহিরপুরের বিন্নাকুলি গ্রামের আহবাব মিয়ার নিকট তার ভাগ্নে রায়হান কে পুলিশ খোঁজার কারন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি স্বীকার করেন,বাদাঘাটের বসবাসরত বড়ছড়া কয়লা ব্যবসায়ী মাটিকাটার বাসিন্দা আব্দুল কদ্দুছের কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে নিয়ে আমার ভাগ্নেপালিয়ে গেছেন।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*