সংবাদ শিরোনামঃ

বরকলে প্রবিন আওয়ামীলীগ নেতার চোখের অপারেশনের দ্বায়িত্ব নিলেন উপজেলা আওয়ামী নেতা সাইফুল ইসলাম মনির৷

মোঃ সোহেল রানা, বরকল উপজেলা প্রতিনিধি।

বরকল উপজেলা আওয়ামী লীগ আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব জনাব সাইফুল ইসলাম মনির গত প্রায় একমাস পূর্বে তার সংগঠনের সহযোগীদের নিয়ে ভূষণছড়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রবিন আওয়ামী নেতা আঃ বারেক অসুস্থ জনিত কারণে তাকে দেখতে যান।সেখানে তার অনেক কথা শুনেন এবং বিভিন্ন ধরনের শান্তনা দেন এবং পরবর্তীতে তার শারিরীক অবস্থার অবনতির কারনে তাকে ফল মূল ও ঔষধ খাওয়ার জন্য তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে কিছু নগদ অর্থ প্রদান করেন,এবং সাইফুল ইসলাম মনিরকে গলাধরে কান্না করেন প্রবিন আওয়ামী লীগের এই বর্ষিয়ান নেতা,এখন বয়সের তাগিদে শারিরীক অসুস্থতার কারনে কেউ তার খোজ রাখেনা।তখন সাইফুল ইসলাম মনির বলেন দেখেন পূর্বে কে কি করেছেন সেটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যপার,এখন জননেতা দীপংকর তালুকদার ও হাজী মোহাম্মদ মুছা মাতব্বর মহোদয় আমাকে যে দায়িত্ব হাতে তুলে দিয়েছেন আমি যতোদিন এই দায়িত্ব নিয়ে সংগঠনের সাথে জড়িত আছি ততোদিন আপনারা যাহারা প্রবীন রয়েছেন তাহারা আমাকে আপনাদের সন্তানের মতো মনে করবেন,আর আমার ব্যক্তিগত উদ্যেগে যতোটু পারি সহযোগীতা করবো। গত দুইদিন আগে ২২ শে মে আঃ বারেক হাওলাদার মুঠোফোনে সাইফুল ইসলাম মনিরের সাথে যোগাযোগ করেন এবং জানান তিনি বর্তমানে দুটি চোখে একেবারেই দেখেননা,এমনিতে লাঠি ভরদিয়ে চলতে হয় কিন্তু বর্তমানে চোখে না দেখার কারনে একেবারে অচল হয়ে পরেছেন,তিনি সাইফুল ইসলাম মনিরকে বলেন বাবা যদি সম্ভব হয় আমার জন্য কিছু করো,সাইফুল ইসলাম মনির তাৎক্ষনিক আঃ বারেক হাওলারকে বলেন আপনি আগামীকাল রাংগামাটি শহরে চলে আসেন আপনার চক্ষু চিকিৎসার যাবতিয় খরচ আমি বহন করবো,তিনি বললেন আমার কাছে লঞ্চ ভাড়ার টাকাও নাই যাবো কি ভাবে? তখন সাইফুল ইসলাম মনির বলেন যে কারো থেকে ধার করে নিয়ে আসেন তাকে আমি পরিশোধ করে দেবো।আজ ২৩-৫-২০২১ইং তারিখ রোজ সোমবার আঃ বারেক হাওলাদার রাংগামাটি যান এবং তার দুটো চোখ মনির সাহেব সামনে থেকে ডাক্তার দ্বারা বিভিন্ন পরিক্ষা করান।ডাক্তার তার চোখের দুটি লেন্সই অপারেশনের মাধ্যমে পরিবর্তন করতে হবে বলে জানান,সাইফুল ইসলাম মনির তখন তার দুটি চোখের অপারেশনের দ্বায়িত্ব নিয়ে নেন,এবং সব কিছু ঠিক থাকলে তার শারিরীক অবস্থা বিবেচনা করে এক সপ্তাহের মধ্যে তার চোখের অপারেশন পাহাড়তলী চক্ষু হাসপাতালে হবে বলে জানান৷ বরকল উপজেলা আওয়ামীলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব মোঃ সাইফুল ইসলাম মনিরের সাথে মুঠোফোন যোগাযোগ করলে তিনি জানান যে আমি সবসময় চেষ্টা করেছি সাধারন মানুষের পাশে থাকার,আঃ বারেক হাওলাদারকে সাহায্য করা আমার নৈতিক দ্বায়িত্ব ছিলো,এবং আমি আমার দ্বায়িত্ব পুরা করার চেষ্টা করে যাচ্ছি৷ এবং আঃ বারেক হাওলাদারের জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন৷

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*