সংবাদ শিরোনামঃ

গোলাপি বল নিয়ে অভিযোগের পাহাড়; আরও পরীক্ষার ঘোষণা

বল নিয়ে একগাদা অভিযোগর কারণে দিবা-রাত্রির টেস্ট চালিয়ে যাওয়ায় সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। গোলাপি বলের ওপর বাড়তি আস্তরণের কারণে প্রচলিত লাল বলের সঙ্গে পার্থক্য হয়ে যাচ্ছে। যে কারণে গোলাপি বল ধারণার চেয়েও দ্রুত ব্যাটে চলে আসছে। এসব অভিযোগ ওঠার পর এসজি কম্পানি গোলাপি বল নিয়ে আরো বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানোর ঘোষণা দিয়েছে।

ভারতের মাটিতে এখনও অবধি ২টি গোলাপি বলের টেস্ট খেলা হয়েছে। ভারতে টেস্টের লাল বল তৈরি করে এসজি কম্পানি। তারাই তৈরি করেছে গোলাপি বল। ২০১৯ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম গোলাপি বলের টেস্ট খেলেন বিরাট কোহলিরা। সেই ম্যাচ শেষ হয়ে গিয়েছিল আড়াই দিনে। মোতেরায় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট শেষ হয় ২ দিনে। ভারতীয় দলের অনেকেই এই বল পছন্দ করছেন না। প্রশ্ন উঠেছে যে, গোলাপি বলের ভবিষ্যৎ কি তবে অন্ধকার?

ভারতীয় বোর্ড যদিও বলছে, ‘গোলাপি বলেই খেলা হবে। টেস্ট ক্রিকেটে দর্শক টানতে গোলাপি বল আরো বড় ভূমিকা রাখবে।’ রবিচন্দ্রন অশ্বিন বলেন, ‘গোলাপি বলে খেলতে আমাদের কোনো অসুবিধা নেই। লাল বলে খেলতে আমরা অভ্যস্ত। হঠাৎ গোলাপি বল চলে আসায় খেলাটাই পাল্টে গিয়েছে। আমরা এখনও মানিয়ে নিতে পারিনি বলে অসুবিধা হচ্ছে।’ ইংল্যান্ডের অধিনায়ক রুট বলেন, ‘বাড়তি আস্তরণ, বেশি শক্ত গোলাপি বল, লাল এসজি বলের থেকে অনেক দ্রুত। সেলাইয়ের ওপর না পড়লেও গতি থাকে বলে।’

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*