সংবাদ শিরোনামঃ

রাজাপুরে সাংবাদিককে হত্যা ও নারী নির্যাতন মামলা দিয়ে ফাঁসানোর হুমকি,থানায় জিডি।

মোঃ তরিকুল সিকদার তারেক ঝালকাঠি প্রতিনিধি

বরিশাল থেকে প্রকাশিত দৈনিক দক্ষিনের খবর’পত্রিকার রাজাপুুর উপজেলা প্রতিনিধি ও রাজাপুর রিপোর্টার্স ইউনিটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও কোষাধ্যক্ষ মো:জামাল হোসেন’কে নারী নির্যাতন মামলা,লুট কেস ও হত্যার হুমকি দিয়েছেন প্রতিপক্ষরা।এ ঘটনায় জামাল হোসেন ১২ ই নভেম্বর রাতে বাদী হয়ে রাজাপুর থানায় একটি সাধারণ ডাইরী(জিডি)করেছেন। ডাইরী সুত্রে জানাযায়,রাজাপুর বাইপাস মোড় এলাকার মো:জামাল হোসেনের সাথে তার প্রতিবেশী মো:আমির হাং (৫৫),পিতা:মৃত্যু মুজাফ্ফর হাং,মোসা:নাসিমা বেগম(২৮),মো:রুবেল হাং উভয় পিতা:আমির হাং,মোসা:রুবী বেগম(২৯),স্বামী-রুবেল হাং,ফেরদৌসি বেগম(৫০),স্বামী-মো:জাফর এর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো।এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালত,ঝালকাঠি এমপি নং-৩৬০/২০,ধারা-১৪৪/১৪৫ ফৌঃকাঃবি: দায়ের করিলে রাজাপুর থানা পুলিশ ১২ নভেম্বর দুপুরের দিকে নোটিশ জারী করিয়া চলিয়া যায়।এর পরে প্রতিপক্ষরা মো:জামাল হোসেন ও তার পরিবারের অন্য সদস্যদের অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে এবং সাংবাদিক জামাল হোসেনে বিরুদ্ধে সাজানো নারী নির্যাতন মামলা,লুট কেস দেওয়া ও তাকে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। সাংবাদিক জামাল হোসেন বলেন,বিবাদীরা তাদের বাহু বল দেখিয়ে আমাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসাবে এবং আমাকে খুন করবে বলে হুমকি দিয়ে আমাদের সম্পত্বিতে পাকা বাড়ী নির্মান করিতেছে।আমি নিরুপায় হইয়া মহামান্য আদালতের দ্বারস্ত হয়েছি।পুলিশ নোটিশ জারী করে চলে যাওয়ার পরে বিবাদীরা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।তারা যে কোনো সময়ে আমাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।এমনকি আমাকে খুন করার হুমকিও প্রদান করছে প্রতিনিয়িত।তারা আমার সাক্ষিদেরকে হুমকি দিচ্ছে। রাজাপুর থানার এস আই মো:শাহ আলম বলেন,এ ঘটনায় মো:জামাল হোসেন বাদী হয়ে থানায় একটি সাধারণ ডাইরী(জিডি)করেছেন।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*