সংবাদ শিরোনামঃ

দোকানের সামনে ৩ ফুট দূরত্ব রাখতে মাগুরায় ব্যতিক্রমী উদ্যোগ


কৌশিক আহম্মেদ সোহাগ

ওষুধের দোকানসহ নিত্যপণ্যের দোকানের সামনে তিন ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে বক্স এঁকে দেওয়া হয়েছে। বিদেশ ফেরতদের বাড়ির সামনে লাল পতাকা টানিয়ে এর আগে এলাকাবাসীকে সর্তক করেছিলেন মাগুরা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান। এবার শহরের নিত্যপণ্য ও ওষুধের দোকানগুলোর সামনে তিন ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে ব্যতিক্রমী এক উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এ বিষয়ে মানুষকে সচেতন করতে একাধিক টিমের মাধ্যমে মাইকিং করার পাশাপাশি তিন ফুট দূরত্ব বজায় রাখতে দোকানের সামনে বক্স এঁকে দিচ্ছেন তিনি। বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান মাগুরা মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান সড়কে সেনা সদস্য, পুলিশ, আনসার ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে নিত্যপণ্য ও ওষুধের দোকানের সামনে মাইকিং কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। পরে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পশ্চিম পাশে সড়কে তিন ফুট অন্তর-অন্তর সাদা রং দিয়ে বক্স এঁকে দেওয়া হয়। এর আগে তিনি শহরের সৈয়দ আতর আলী সড়কের বিভিন্ন স্থানে একইভাবে এই কার্যক্রম পরিচালনা করেন। লোকজনকে পরস্পরের কাছ থেকে অন্তত তিন ফুট দূরত্বে রাখতে দোকানের সামনে রং দিয়ে গোল চিহ্ন এঁকে দেওয়া হচ্ছে এ বিষয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান বলেন, সেনা সদস্য, পুলিশ, আনাসারসহ সম্মিলিত ফোর্স নিয়ে তিনি সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দোকান-পাট বন্ধ ও জনসমাগম বিচ্ছিন্ন করা এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে কাজ করেছেন। পাশাপাশি শহরের ওষুধ, নিত্যপণ্যের দোকানে ব্যক্তিগত দূরত্ব বজায় রাখতে রং দিয়ে ৩ ফিট দূরত্বের চিহ্ন এঁকে দিচ্ছেন। তিনি বলেন, মাগুরায় শুরু থেকেই সম্মিলিতভাবে করোনা প্রতিরোধে নানা ইতিবাচক কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়, যা ধারাবাহিকভাবে চলমান রয়েছে। এ কারণে মাগুরা জেলা এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে অনেকটা ভালো অবস্থায় রয়েছে।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*