সংবাদ শিরোনামঃ

লোহাগাড়ায় জোরপূর্বক জায়গা দখল ও মিথ্যা মামলার হয়রানির শিকার কৃষক মো:মোরশেদ আলম


দেশপ্রিয় বড়ুয়া বিশেষ প্রতিনিধি,

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর ইউনিয়নের রশিদার ঘোনা মিয়া পাড়ার বাসিন্দা মোরশেদ আলম নামে এক ব্যক্তির জায়গা জোরপূর্বক দখল করে পাকা দেওয়াল ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আধুনগর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের রশিদার ঘোনা মিয়া পাড়ার বাসিন্দা মৃত্যু জামাল আহমদের পুত্র কৃষক মোরশেদ আলম(৩৮)। জানা গেছে, লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের রশিদার ঘোনা মিয়া পাড়ার বাসিন্দা মৃত্যু জামাল আহমদের পুত্র মোরশেদ আলম (৩৮) এর ৯৫২(বিএস)২৮ শতাংশ, ৬৩৩(আরএস) দাগের ১৪ শতাংশ জায়গা সম্পূর্ণ অবৈধ ভাবে জোরপূর্বক দখল করে পাকা দেওয়াল দিয়েছে। এতে বাঁধা দিতে গেলে শফিক আহমদ (৬৫) গংরা প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য একের পর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে বলে অভিযোগে জানা যায়। এতে সম্পূর্ণ ভাবে হয়রানি ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে শফিক আহমদ গংরা মারধর সহ মিথ্যা মামলা দিয়ে মোরশেদ আলমকে জেল পর্যন্ত খাটিয়েছেন। কৃষক মোরশেদ আলম গরীব নিরীহ অসহায় হওয়ার কারণে এলাকায় ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত। অপরদিকে শফিক আহমদ ধন-সম্পদ ও প্রভাবশালী ব্যক্তি হওয়ায় অর্থের বিনিময়ে সকল কিছু ম্যানেজ করে নেন বলেও জানা যায়। এদিকে কৃষক মোরশেদ আলম অত্র প্রতিবেদক’কে বলেন, এতকিছুর পরেও আমার জায়গা জবরদখল করে কাজ অব্যাহত রেখেছেন শফিক আহমদ(৬৫)(প্রকাশ দুবাই রফিক) গংরা। এতে বাধা দিতে গেলে শফিক আহমদ গংরা আমাকে ও পরিবারকে বিভিন্ন ধরনের মামলায় জড়ানো সহ প্রাণনাশের হুমকি ধমকি দিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। তাই আমি এই মামলাবাজ, ভূমিদস্যুদ শফিক আহমদ (৬৫)(প্রকাশ দুবাই রফিক) এর হাতথেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বর্তমান সরকারের কাছে বিনীত অনুরোধ জানাই। এবিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ ৪নং ওয়াডের সদস্য ফরিদুল আলম বলেন, জায়গার মালিক হচ্ছে মোরশেদ আলম। কিন্তুু অনেক বার বসার কথা থাকলেও কিন্তুু শফিক আহমদ স্থানীয় বিচার না মেনে জোরপূর্বক চকরিয়া থেকে সন্ত্রাসী ভাড়া করে মোরশেদ আলমের পারিবারকে মারধর করে জায়গা দখল করে। ইতিমধ্যে মোরশেদ আলমকে অনেক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার কথাও জানান তিনি।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*