সংবাদ শিরোনামঃ

ইয়াবাসহ ১৯ হাজার মার্কিন ডলারে গাড়ি বিক্রি করে দিল পুলিশ

গত বছর একটি গাড়ি জব্দ করেছিল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ। চলতি মাসে সেই গাড়ি নিলামে তোলা হয়। হোন্ডা সিআর-ভি নামের গাড়িটি বিক্রি হয় ১৯ হাজার মার্কিন ডলারে। তবে নিলামে বিক্রি হওয়া ওই গাড়িতে প্রায় এক লাখ ইয়াবা ছিল। সংবাদমাধ্যমে খবরটি প্রকাশিত হওয়ার পর ক্ষমা চেয়েছে থাইল্যান্ড মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, থাইল্যান্ডের এক ব্যক্তি গাড়িটি কেনার পর তা মেরামত করার জন্য একটি গ্যারাজে দেন। সেই গ্যারাজের এক কর্মী গাড়িটি মেরামত করতে গিয়ে বাম্পারের ভেতর থেকে ৯৪ হাজার পিস ইয়াবা খুঁজে পান। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর দেশটির মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তারা সমালোচনার মুখে পড়েছেন।

অভিযোগ আসার পর থাই কর্মকর্তারা বলছেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের কোনো ঘটনায় আরও বেশি তল্লাশি অভিযান চালাবেন তারা। প্রসঙ্গত, গত বছর দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ চিয়াং রাই থেকে গাড়িটি আটক করা হয়। তখন গাড়িটির পেছনের আসন থেকে ১ লাখ ইয়াবা জব্দ করা হয়েছিল।

ব্যাংকক পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী থাইল্যান্ডের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের (ওএনসিবি) মহাপরিচালক নিয়াম তামশিরিসুক বলেন, ‘নিয়ম অনুযায়ী আমরা যেসব গাড়ি আটক করি তার প্রত্যেকটিতে তল্লাশি চালানো হয়। এটাও তার ব্যতিক্রম ছিল না। কিন্তু ইয়াবাগুলো খুব গোপনে লুকিয়ে রাখায় ওই সময় হয়তো আমরা তা দেখতে পাইনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘মেথাফেটামাইন ও ক্যাফেইনের মিশ্রণে তৈরি ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো গাড়ির গোপন অংশে থাকা বাম্পারের ভেতর লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। সেখান থেকে ইয়াবাগুলো উদ্ধার করার জন্য গ্যারাজের ওই কর্মী ও গাড়ির বর্তমান মালিককে পুরষ্কৃত করা হবে। এটা মামলায় নতুন মাত্রা যোগ করলো।’

উল্লেখ্য, ইয়াবা হলো এক ধরনের মাদক। এটি মেথাফেটামাইন ও ক্যাফেইনের মিশ্রণ। ইয়াবার মূল শব্দের উৎপত্তি থাই ভাষা থেকে। এর সংক্ষিপ্ত অর্থ ‘পাগলা ওষুধ’। অনেকে এই মাদককে বলে থাকেন ‘ক্রেজি মেডিসিন’। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে ইয়াবা আবিষ্কার করা হয়। মূলত দীর্ঘ সময় যুদ্ধক্ষেত্রে থাকা সৈন্যরা এটা সেবন করতেন।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*