সংবাদ শিরোনামঃ

সিটি নির্বাচন: অভিযোগ পাল্টা অভিযোগে চলছে প্রচারণা

কুয়াশা আর শীত উপেক্ষা করেই ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে প্রধান দু্ই দলের মেয়র প্রার্থীরা প্রচারণার মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট চেয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা বলেন, আচরণবিধি মেনেই প্রচারণা চালাচ্ছেন তারা। আর বিএনপি প্রার্থীরা বলছেন, ধানের শীষের পক্ষে জনজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। শেষ সময় পর্যন্ত ভোটের মাঠে থেকে প্রতিরোধ গড়ে তোলারও ঘোষণা তাদের। 

ঘন কুয়াশার চাদরে ঢাকা পুরো রাজধানী। তারপরও কুয়াশার চাদর ভেদ করেই ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রার্থীরা মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) সকাল থেকেই প্রচারণায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। কারণ নির্বাচনের যে আর বাকি হাতে গোনা কয়েকদিন।

ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ফজলে নূর তাপস কামরাঙ্গীর চর এলাকার ৫৫ নম্বর ওয়ার্ডের ঝাউচর এলাকা থেকে নির্বাচনী গণসংযোগ শুরু করেন। এ সময় তিনি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কামরাঙ্গীর চর এলাকার উন্নয়ণে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন। এছাড়া, নির্বাচিত হলে বছরের ৩৬৫ দিনই জনসেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার কথাও জানান। নির্বাচনী প্রচারণায় কোন ধরণের আচরণ বিধি লঙ্ঘন করছেন না বলেও জানান তিনি।

এদিকে, দক্ষিণের বিএনপি প্রার্থী ইশরাক হোসেন তার নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন খিলগাঁও নন্দীপাড়ার ত্রিমোহনী বাজার থেকে। পরে, সবুজবাগ, বাসাবো এলাকায়ও প্রচারণা চালান তিনি। এ সময় তিনি জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকার ঘোষণা দেন।

ঢাকা উত্তরের বিএনপি প্রার্থী তাবিথ আওয়াল উত্তর বাড্ডা, মেরুল বাড্ডা এবং গুলশান লিংক রোড এলাকার বিভিন্ন অলি-গলি চষে বাড়াচ্ছেন। ভোটারদের প্রতি আহ্বান রাখছেন যেন ধানের শীষে ভোট দিয়ে এলাকাবাসির সেবা করার সুযোগ দেয়া হয়। এ সময় তাবিথ অভিযোগ করেন, বিএনপির জনজোয়ারে ভীত হয়ে সরকারি দলের প্রার্থীরা তাদের ওপর হামলা চালাচ্ছেন।

ঢাকা উত্তরের আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতিকুল ইসলাম তার নির্বাচনী এলাকার আগারগাঁও, তালতলা থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। প্রতিশ্রুতি দেন আবারো মেয়র নির্বাচিত হলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনকে আধুনিক, সুস্থ ও সচল নগরী হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি প্রার্থীরা নির্বিঘ্নেই প্রচারণা চালাচ্ছেন। তাই মিথ্যা, অসত্য প্রচার থেকে বিরত থাকতে তাদের প্রতি আহ্বান জানান আতিকুল।

আওয়ামী লীগ, বিএনপির চার হেভিওয়েট প্রার্থী ছাড়াও অন্যান্য দলের প্রার্থীরাও নির্বাচনী প্রচারণা আর গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*