সংবাদ শিরোনামঃ

ভারতে যখন শিশু আসিফাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছিল, তখন এরকম একটি পোস্টার সহায়তা করেছিল দেশজুড়ে প্রতিবাদ গড়ে তুলতে

প্রতিবেদক: সোহাগ খান:

ভারতে যখন শিশু আসিফাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছিল, তখন এরকম একটি পোস্টার সহায়তা করেছিল দেশজুড়ে প্রতিবাদ গড়ে তুলতে । গণজাগরণের মুখে একসময় গ্রেফতার হয় ধর্ষকেরা, বিচার হয় তাদের আদালতে । আমাদের দেশ স্বাধীন হয়েছে ৪৮ বছর হল । এই ৪৮ বছরের মাঝে ২৫ বছরের বেশি সময় আমাদের রাষ্ট্রপ্রধান ছিলেন একজন নারী । গত ৩৫ বছর ধরে আমাদের বিরোধীদলীয় প্রধান একজন নারী। আইন প্রনয়ণ হয় যেখানে, সেই সংসদের মাননীয় স্পিকারও একজন নারী এবং এই দেশে গত ছয় মাসে ধর্ষন হয়েছে ৬৩০ টি । যার মধ্যে অধিকাংশই শিশু । এটা অফিসিয়াল হিসাব । আসল সংখ্যাটি এরচেয়েও কয়েকগুণ বেশি । এবং এই দেশে, ২০১৯ সালে, এখনও ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে কাউকে মৃত্যুদন্ড দন্ডিত করা হয় না । অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ধর্ষক ধরা পড়ে না, যারা পড়ে তারা কিছুদিন পরে বিচার ব্যবস্থার গোড়ায় কিছু মুদ্রা ঢেলে জামিনে বেরিয়ে আসে । সমাজ দোষ দেয় মেয়েটির পোশাকের, চাকুরির অথবা পরিবারের।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*