সংবাদ শিরোনামঃ

নিম্নমানের পণ্য উৎপাদন করছে চট্টগ্রামের ১১ প্রতিষ্ঠান

ভ্রম্যমাণ প্রতিনিধি ,মুহাম্মদ শহীদুল ইসলাম :
প্রথম দফা ৫২ পণ্যের পর দ্বিতীয় দফায় অবশিষ্ট ৯৩টি পণ্যের মধ্যে ২২টির নমুনা নিম্নমানের পেয়েছে বিএসটিআই। মঙ্গলবার (১১ জুন) বিএসটিআইয়ের পরিচালক (সিএম) প্রকৌশলী এস এম ইসহাক আলীর পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। নিম্নমানের পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করছে বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামের এগারোটি বহুল পরিচিত প্রতিষ্ঠান। এ সব প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত আছেন চট্টগ্রামের সনামধন্য ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক নেতারা। অনুসন্ধানে জানা যায়, চট্টগ্রামে নিম্নমানের পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করছে এমন প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) সাবেক চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যাক্ষ আবদুচ ছালামের মালিকানাধীন ‘ওয়েল ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কোম্পানি’। এই প্রতিষ্ঠানটি ‘ওয়েল ফুড’ ব্রান্ডের লাচ্ছা সেমাই উৎপাদন ও বাজারজাত করছে। ষোলশহরের আতুরারডিপো জঙ্গলপাড়ায় রয়েছে এই প্রতিষ্ঠানের কারখানা। অবশ্য, পরে বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় এই ব্রান্ডটি উত্তীর্ণ হয়। নিম্নমানের ‘মধুবন’ ব্রান্ডের লাচ্ছা সেমাই উৎপাদন ও বাজারজাত করছে পাঁচলাইশ থানাধীন মুরাদপুরের হাটহাজারী রোডের ‘মধুবন ব্রেড অ্যান্ড বিস্কুট ইন্ডাস্ট্রিজ প্রাইভেট লিমিটেড’। নিম্নমানের পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকারী চট্টগ্রামের অন্য প্রতিষ্ঠান ও ব্রান্ডগুলো হলো এসএস কনজ্যুমার প্রোডাক্টসের ‘পিওর হাটহাজারী’ ব্রান্ডের মরিচের গুড়া; ফিরিঙ্গিবাজার ইয়াকুব নগরের মিষ্টিমেলা ফুড প্রোডাক্টস এর ‘মিষ্টিমেলা’ ব্রান্ডের লাচ্ছা সেমাই; নাসিরাবাদের বায়তুল আমান মার্কেটের মিঠাই সুইটস অ্যান্ড বেক এর ‘মিঠাই’ ব্রান্ডের লাচ্ছা সেমাই; সীতাকুন্ডের বাঁশবাড়িয়ার কেআর ফু ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ‘কিং’ ব্রান্ডের ময়দা; হালিশহরের ঈদগাহ ডিটি রোডের রূপসা ফুড প্রোডাক্টস এর ‘রূপসা’ ব্রান্ডের ফারমেন্টেড মিল্ক এবং আসাদগঞ্জের ইমতিয়াজ ব্রেড অ্যান্ড ফুড প্রোডাক্টস এর ‘মেহেদী ব্রান্ডের বিস্কুট’, যমুনা কেমিক্যাল ওয়ার্কসের এ-৭ ব্র্যান্ডের ঘি, কুইন কাউ ফুড প্রোডাক্টসের গ্রিন মাউন্টেন ব্র্যান্ডের বাটার অয়েল, কনফিডেন্স সল্টের কনফিডেন্স ব্র্যান্ডের আয়োডিনযুক্ত লবণ।

 

 

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*