সংবাদ শিরোনামঃ

নীলফামারী সদরে পৈতৃক জমিতে বাঁশ কর্তনের অভিযোগ বিচার পাচ্ছেনা ভুক্তভোগী পরিবার

 নীলফামারী প্রতিনিধিঃ মোঃ মিঠু মিয়া

পৈতৃক জমির মালিকানা বাঁশ বাগানের প্রায় ৩০ টি বাঁশ কর্তনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ন্যায় বিচার পাচ্ছে না নীলফামারী সদর উপজেলার কচুকাটা ইউনিয়নের কামার পাড়া গ্রামের মৃত বিনোদ চন্দ্র মোহন্তের ছেলে হরিপদ মোহন্ত (৩৫) এর ভুক্তভোগী পরিবার। হরিপদ মোহন্তের পৈতৃক জমির বাঁশ বাগানের প্রায় ৩০টি বাঁশ জোরপূর্বক কর্তন করে এক’ই এলাকার মৃত দিনবন্ধু মোহন্তের ছেলেরা।

ঘটনাটি গত (মঙ্গলবার ২১ মে) বিকালে অভিযোগকারী হরিপদ মোহন্ত তার নিজেস্ব জমিতে ধান কাটতে যায়, এই সুযোগে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দীনবন্ধু মোহন্তর ছেলে নিরঞ্জন চন্দ্র মোহন্ত ও শিবু চন্দ্র মোহন্ত দলবল নিয়ে বাঁশ বাগানের ৩০টি বাাঁশ জোরপূর্বক কাটতে থাকে। খবর পেয়ে হরিপদ মোহন্ত ছুুটে আসে এবং তাদেরকে বাধা নিষেধ করে। কথা কাটাকাটির এক পর্যায় বাশ কাটতে আসা লোকজন সন্ত্রাসী কায়দায় তাকে মারপিট করে রক্তাক্ত ও অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। পরে এলাকার লোকজন তাকে উদ্ধার করে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে। এবিষয় ৭নং কচুকাটা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ চৌধুরী জানান, বিষয়টি উভয় পক্ষের সাথে আলোচনা করে সমাধান টানবো ।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*