সংবাদ শিরোনামঃ

নগরীর জালালাবাদ চক্ষু হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে এসে প্রতারিত হচ্ছে রোগীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ জালালবাদ কমিউনিটি চৃক্ষু হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চলছে বিভিন্ন অনিয়ম, রোগীদের জিম্মি করে মোটা অংকের টাকা আদায়, বিভিন্ন পরীক্ষার মনগড়া রিপোর্ট, নামে চুক্ষু হাসপাতাল হলেও চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে সব রোগের। এই হাসপাতালের রিপোর্টের সাথে অন্য ক্লীনিক বা হাসপাতালের রিপোর্টের কোন মিল পাওয়া যায় না।

এই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে প্রতারিহত হচ্ছে সাধারণ মানুষ।
এই চুক্ষু হাসপাতালটি সর্ম্পূণ অবৈধভাবে গড়া হয়েছে এবং সরকারি কোন নিয়ম নীতি মানা হচ্ছে না বলেও স্থানীয়দের অভিযেগ। সরকা্রি নিয়মিত মতে একটি হাসপাতাল বা ক্লিনিক পরিচালনা করতে হলে স্থাস্থ্য মন্ত্রনালয়, পরমানু শক্তিকমিশন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, সীভিল সার্জনের অনুমোদন থাকা প্রয়োজন হলেও এই ক্ষেত্রে তা মানা হচ্ছে বলে খবর পাওযা গেছে।

হাসপাতাল বা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দক্ষ ট্যাকনেশিয়ান, দক্ষ নার্স, এবং চিকিৎসকের তালিকা এবং অভিক্ষতার সনদ থাকার কথা থাকলেও সরেজনিমেন গিয়ে দেখা গেছে এই ক্ষেত্রে কিছু নাই তাদের কাছে। হাসপাতালের ভিতরে বাইরে ময়লা আর্বজনা দুগন্ধে ভাল মানুষও অসুস্থ হয়ে পড়বেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। হাসপাতালের বিভিন্ন অনিয়ম অসঙ্গতি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করার জন্য সরেজমিনে গেলে হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সাংবাদিকের ভয় ভীতি দেখান এবং বড় বড় সাংবাদিকের নাম বলে রিপোর্ট বন্ধ করার চেষ্ঠা করেন।

এই প্রসঙ্গে হাসপাতালের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বলেন, হাসপাতালটি আমার জানামতে সব ঠিক টাক চলছে, হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা এবং কোন অনিয়ম অসঙ্গতি নিয়ে কারো কিছু বলার থাকলে এলাকার কেউ এই পর্যন্ত আমার কাছে আসেনি।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*