সংবাদ শিরোনামঃ

সুনামগঞ্জ তাহিরপুর ফের ৩ শুল্কষ্টেশন দিয়ে কয়লা আমদানি চালু

 

 বিশেষ প্রতিনিধি: রোকন মিয়া

সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার ৩ সীমান্ত এলাকা বড়ছড়া, চারাগাও ও বাগলী শুল্কষ্টেশন দিয়ে ফের বহু জনঝাট এরিয়ে কয়লা আমদানি শুরু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ২১মে বিকাল ২টায়, আনুষ্ঠানিক ভাবে কয়লা আমদানী পূর্বের ন্যায় চালু করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন , ভারতের মেঘালয় মাইন ওনার্স এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশন এবং তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক গ্রুপের নেতৃবৃন্দ ও ব্যবসায়ীকরা। এ উপজেলার শুল্কষ্টেশন গুলি ভারতীয় ট্রাইব্যুনালের মামলার জটিলতার কারণে কয়েক দফা বন্ধ আবার চালু করা হয়।শুল্কষ্টেশন গুলি চালু ও বন্ধের ফলে এর সাথে সম্পর্কিত প্রায় অর্ধ লক্ষ লোক কর্ম হারায় আবার ফিরে পায়।যার স্থায়ী সমাধান হয়নি বছরে পর বছর গেলেও। ভারতের মেঘালয় মাইন ওনার্স এক্সপোর্টার অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি এর উপস্থিতিতে ভারত থেকে আসা কয়লাবোঝাই ট্রাকগুলো গ্রহণ করেন তাহিরপুর কয়লা আমদানিকারক গ্রুপ সমিতির সভাপতি আলকাছ উদ্দিন খন্দকার, তাহিরপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাজী রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন, তাহিরপুর কয়লা আমদানি গ্রুপের আন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক আবুল খায়ের, কয়লা আমদানী কারক গ্রুপের কোষাধ্যক্ষ জাহের আলীসহ,উপস্থিত উপজেলার বিভিন্ন কর্মকর্তাদের নিয়ে কয়লা আমদানি শুরু হয়। আমদানি কারক গ্রুপের সংশ্লিষ্ট তথ্য জানাযায়,সর্বশেষ আমদানি চালু করার পর ভারতীয় মেঘালয়ের পরিবেশবাদী সংঘটনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল ২০১৯ সালের ১৫ ই জানুয়ারি থেকে আদালতের রায়ে কয়লা আমদানি বন্ধ ছিল। পরে ২ দেশের কয়েক দফা বৈঠকের পরিপ্রেক্ষিতে, আদালত উত্তোলিত কয়লা রপ্তানির জন্য শুল্কষ্টেশন গুলি পুনরায় মঙ্গলবার চালু হয়। তবে সবচেয়ে কম মেয়াদী সময় নিয়ে চালু হয়েছে এবার। আমদানি কারক গ্রুপের সংশ্লিষ্ট তথ্য জানাযায় এবার মাত্র ১৫ দিনের জন্য এ শুল্কষ্টেশন গুলি চালু হয়েছে।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*