সংবাদ শিরোনামঃ

১৮ বছর ব্যাপী আন্দরকিল্লা মসজিদের মাসব্যাপী ইফতার মাহফিলে ধনী গরিবের মহামিলন

 

তানভীর আহমেদ, চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদের মাসব্যাপী ইফতার মাহফিল কালের বির্বতনে ব্যপক প্রসার লাভ করেছে এবং এই ইফতার মাহফিল চট্টগ্রামবাসীর ঐতিহ্যে পরিনত হয়েছে।অত্যন্ত সুশৃঙ্খল এবং সুষ্ঠ ব্যবস্থাপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত এই ইফতার মাহফিল ১৮ বছরে পদার্পন করেছে। সরেজমিনে মসজিদে প্রবেশ করে দেখা যায়, ঘড়ির কাটায় ঠিক ৫টা ২০ মিনিটে আসরের নামায শেষ হওয়ার পর মুসল্লিরা বাড়ির পানে না ছুটে অত্যন্ত সুশৃঙ্খল ও সারিবদ্ধভাবে ইফতার করার জন্য বসে পড়েছে।নেই কোন হৈহুল্লোড় এবং নেই কোন বিশৃঙ্খলা।সারিবদ্ধভাবে বসে পড়া মুসল্লিদের মধ্যে রয়েছে ফকির,মিসকিন,ধর্ণাঢ্য ব্যবসায়ী, আইনজীবী,চাকুরিজীবী,ছাত্র,শিক্ষক,সাংবাদিক, খেটে খাওয়া মানুষসহ সমাজের সর্বস্তরের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।তারা নিজেদের মধ্যে কুশলাদি বিনিময় এবং কোরআন তেলাওয়াত,জিকির আসগরে মগ্ন।তাদের সাথে কথা বলে জানা যায়,প্রতিদিন প্রায় দুই থেকে আড়াই হাজার মানুষ শাহী মসজিদে ইফতার করে।

২০০১ সালে অত্র মসজিদের সম্মানিত খতিব সৈয়দ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন তাহেরী জাবেরী আল মাদানীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে এই ইফতার মাহফিল শুরু হয়।পরবর্তীতে ২০০৬ সালে সম্মানিত খতিব এবং মুসল্লি পরিষদের যৌথ তত্ত্বাবধানে এই ইফতার মাহফিল ধারাবাহিকভাবে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।এই ইফতার মাহফিল সম্পর্কে শাহী মসজিদের সম্মানিত খতিবের ব্যক্তিগত সহকারী হাসান মুরাদ বলেন “মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে এবং চট্টগ্রামবাসীর সহযোগিতায় ধারাবাহিকভাবে সুদীর্ঘ ১৮ বছর ব্যাপী এই ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে।প্রতিদিন প্রায় দুই থেকে আড়াই হাজার মানুষ বর্কতের সাথে মসজিদে ইফতার করে এবং চট্টগ্রামের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অসংখ্য মানুষ সওয়াব এবং মনের আশা পূরনের নিমিত্তে এখানে ইফতার করে।’’ মসজিদের সেছ্বাসেবকরা জানান প্রতিদিন আড়াই হাজার মানুষের ইফতার তৈরী করেন দশজন বাবুর্চি এবং মুসল্লিদের ইফতার সরবরাহ করেন ১৫জন  বেতনধারী  স্বেচ্ছাসেবক ।এছাড়া ও আরো অনেক অবৈতনিক স্বেচ্চাসেবক রয়েছে ।

পবিত্র রমজানের মানবতার য তাৎপর্য্যের যে শিক্ষা অর্থাৎ ইসলামে  ধনী গরীবের যে তফাৎ নাই তার বাস্তব চিত্র আমরা দেখতে পাই সুদীর্ঘ ১৮বছর ব্যাপী সুনামের সাথে চলে আসা এ্ই ইফতার মাহফিলে
।যুগ যুগ ধরে এই ইফতার মাহফিল যেন তার ঐতিহ্য ধরে রেখে সুনামের সাথে অব্যাহত থাকে এই কামনা সমগ্র চট্টগ্রামবাসীর ।

 

 

 

 

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*