সংবাদ শিরোনামঃ

ভোলায় মহাসড়কে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি, হাতির খপ্পরে পড়ে শিক্ষকসহ আহত-২

ভোলা প্রতিনিধি: মিরাজ হোসেন 
ভোলার বিভিন্ন সড়ক মহাসড়ক ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে আজ প্রায় তিন দিন ধরে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি করছে একটি প্রভাবশালী মহল। প্রতিদিন সকাল থেকে শুরু করে সন্ধ্যা পর্যন্ত এমন চাঁদাবাজির দৃশ্য দেখা যায় শহরের বিভিন্ন সড়ক মহাসড়ক ও গুরুত্বপূর্ণ জায়গা গুলোতে। লাঠি হাতে হাতির পিঠে বসা ২০ বছরের বালকের হাতে সেই চাঁদার টাকা তুলে দিচ্ছে পোষা হাতি। হাতির পিঠে বসা বালকের কৌশলে বা তাঁর নির্দেশে কম টাকা নিচ্ছে না পোষা হাতি। হাতির সামনে জিম্মি ব্যক্তি তাঁর চাহিদা মতো টাকা দিলেও পিঠে বসা বালকের নির্দেশনায় সেই টাকা নেয়না পোষা হাতি। পলে হাতির সামনে জিম্মি ব্যক্তি চাহিদার অতিরিক্ত টাকা দিলেই মুক্তি মেলে।
নইলে বালকের নির্দেশে হাতির সামনে জিম্মি থাকতে হয় ঘন্টার পর ঘন্টা। মোটরসাইকেল ও অটোগাড়ি চালকদের কাছ থেকে ২০ টাকা থেকে শুরু করে ১০০ টাকা, মহাসড়কে চলাচলরত গাড়ি থেকে ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১০০ বা ১৫০ টাকা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে ২০ টাকা থেকে শুরু করে নিদির্ষ্ট পরিমাণ পর্যন্ত টাকা নিয়ে থাকে পোষা হাতি। বালকের কৌশলেই ঠিক হয় টাকার পরিমাণ। সরেজমিন ঘুরে এমনই চিত্র দেখা যায়। হাতির চাঁদার কাছে জিম্মি চালক ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, এটা খুবই ভয়াবহ একটা চাঁদাবাজি। হাতি দেখে অনেকে খুশি মতো যা পারে তা দিয়ে থাকে। কিন্তু এটা কেমন চাঁদাবাজি যে আমি আমার খুশির বাহিরেও অতিরিক্ত টাকা দিতে হবে।
এটাও একটা চাঁদাবাজি। গাড়িতে থাকা যাত্রী’রা বলছে, অনেক ক্ষেত্রে আমরাই ভয় পেয়ে থাকি। আর গাড়িতে থাকা ছোট্ট ছোট্ট বাচ্চাদের অবস্থা কেমন হয় সেটা তো বোঝেন ই। এটা কেমন চাঁদাবাজি যে মানুষকে জিম্মি করে টাকা দিতে হবে। আমরা অচিরেই এই চাঁদাবাজি বন্ধ করতে জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। হাতির চাঁদার খপ্পরে পড়ে একজন শিক্ষকসহ মোটরসাইকেলের ২ জন আরোহী গুরুত্বর আহত হয়। বুধবার সকাল ১২টার দিকে উপজেলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের হাওলাদার বাজার বিশ্বরোড সংলগ্ন মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। গাড়িতে থাকা আরোহীসহ দ্রুত গতিতে গাড়ি চালিয়ে আসতেই হঠাৎ হাতির খপ্পরে পড়ে তাৎক্ষণিক ব্রেক করলে মোটরসাইকেল উল্টিয়ে শিক্ষকসহ ২ জন গুরুতর আহত হয়। হাতি দিয়ে চাঁদাবাজির বিষয়ে ভোলা জেলা প্রশাসকের সাথে মুঠোফোনে একাদিকবার চেষ্টা করেও মুঠোফোন রিসিভ না হওয়ায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

 

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*