সংবাদ শিরোনামঃ

বসন্তের পরেরদিন ভেলেন্টাইনস ডে সবার মনে এক নতুন আনন্দ

বসন্তের আগমন হতে না হতেই ১৪ ফেব্রুয়ারি, বিশ্ব ভালোবাসা দিবস কিংবা সেইন্ট ভ্যালেন্টাইনস ডে যাই বলা হোক না কেন, সারাবিশ্বেই বেশ ঘটা করে পালিত হয় এ দিনটি। পরস্পর ভালো লাগার মানুষের সাথে আনন্দঘন কিছু মূহুর্ত কাটাতে অপেক্ষায় থাকে প্রেমিক-প্রেমিকারা।প্রতি বছর ভালবাসার এই দিনে পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত, ওয়ার সিমেট্রি, শিশুপার্ক, স্বাধীনতা পার্ক, চিড়িয়াখানা, সি ওয়ার্ল্ড, বাটালি হিল, শাহ আমানত সেতু, আগ্রাবাদের জাতি তাত্ত্বিক জাদুঘর, রেলওয়ে জাদুঘর, টোল রোড, নেভাল একাডেমিতে তরুণ-তরুণীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে। কাজেই এবারও তার ব্যতিক্রম হওয়ার কথা না।চেরাগীর মোড়ে ফুল ব্যবসায়ীরা বলেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার সবচেয়ে বেশি ফুলের অর্ডার পেয়েছি। আগামীকাল ভালবাসা দিবসে ফুলের বিক্রি আরও বাড়বে বলে আশা করছি।প্রতি বছর ভালবাসার এই দিনে পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত, ওয়ার সিমেট্রি, শিশুপার্ক, স্বাধীনতা পার্ক, চিড়িয়াখানা, সি ওয়ার্ল্ড, বাটালি হিল, শাহ আমানত সেতু, আগ্রাবাদের জাতি তাত্ত্বিক জাদুঘর, রেলওয়ে জাদুঘর, টোল রোড, নেভাল একাডেমিতে তরুণ-তরুণীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে। কাজেই এবারও তার ব্যতিক্রম হওয়ার কথা না।নতুন উদ্দিপনা আর প্রিয় মানুষকে কাছে পাওয়ার আনন্দে আত্মহারা ।এযেন এক নতুন দিন নতুন আশা । নগরীর চেরাগী পাহাড়, মোমিন রোড, লালদীঘির পাড়ের বিভিন্ন ফুলের দোকান এবং নিউমার্কেট, আন্দরকিল্লা ও সেন্ট্রাল প্লাজাসহ বিভিন্ন অভিজাত সব বইয়ের দোকানে প্রিয়জনকে উপহার দিতে তরুণ-তরুণীদেরকে বই, কার্ড, গিফট বক্স ও ফুল কিনতে দেখা গেছে।ভালবাসার বন্ধনে আবদ্ধ প্রিয়জনেরা একে অন্যকে তাদের ভালবাসা জানায়।বিশ্ব ভালোবাসা দিবস ১৪ ফেব্রুয়ারি।এই ১৪ ফেব্রুয়ারি দিনটিকে ভ্যালেন্টাইন্স ডে, হিসেবে উদযাপন করা হয় বিশ্বব্যাপী।এই দিনে স্বামী-স্ত্রী, বাবা-মা-ভাইবোন, প্রিয় বন্ধুরা মিলিত হয় ভালোবাসার বন্ধনে। আগে ভ্যালেন্টাইন্স ডে শুধুমাত্র যুক্তরাষ্ট্র বা পাশ্চাত্য সমাজের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও বর্তমানে বিশ্বব্যাপী আনন্দ উন্মাদনার সঙ্গে পালন করা হয়।ভালোবাসা দিবস বা সেন্ট ভ্যালেন্টাইন’স ডে একটি বার্ষিক উৎসবের দিন যা ১৪ই ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা এবং অনুরাগের মধ্যে উদযাপিত হয়। দিবসটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উদযাপিত হয়ে থাকে, ।ভালোবাসা দিবসের উপহার হিসেবে প্রিয় মানুষটিকে কী দেবেন, এই নিয়ে মুশকিলে পড়েন অনেকেই

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*