সংবাদ শিরোনামঃ

আশুলিয়ায় বাবাকে ফেলে মেয়েকে হত্যার মামলা গোয়েন্দা পুলিশে হস্তান্তর

আজম সরকার,সাভারঃ

রাজধানীর উপকন্ঠ শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ায় চলন্ত বাস থেকে বাবাকে ফেলে দিয়ে জরিনা নামে এক মেয়েকে হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলা ঢাকা জেলা উত্তর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। শনিবার ১০ নভেম্বর রাত ৮টার দিকে আশুলিয়া থানা থেকে নথিপত্রসহ মামলা তদন্ত গোয়েন্দা পুলিশে হস্তান্তর করা হয় বলে নিশ্চিত করেন ঢাকা জেলা পুলিশ সুপার শাহ মিজান সাফিউর রহমান। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত জড়িত কাউকে গ্রেফতার ও বাসটি শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। এ ব্যাপারে ঢাকা জেলা উত্তর ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএফএম সায়েদ বাংলানিউজকে বলেন, মামলাটি হাতে পাওয়ার পর থেকেই আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। ঘটনাস্থল পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। প্রসঙ্গতঃ শুক্রবার দুপুরে জরিনা তার বাবাকে নিয়ে আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকায় মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। পরে সেখান থেকে সন্ধ্যা পৌনে ৬টার দিকে বাবাকে সঙ্গে নিয়েই বাসে করে স্বামীর বাড়ি টাঙ্গাইলের উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। এসময় বাসচালক, হেলপার ও সুপারভাইজারসহ কয়েকজনের সঙ্গে বাবা-মেয়ের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে জরিনার বাবা আকবর আলী মণ্ডলকে মারধর করে চলন্ত বাস থেকে ব্রিজের নিচে ফেলে দেওয়া হয়। পরে জরিনাকে মারধর করে হত্যার পর মহাসড়কের পাশে মরাগঙ্গ এলাকায় মরদেহ ফেলে পালিয়ে যান চালক-হেলপার ও সুপারভাইজার। পুলিশ জানায় আসামীদের গ্রেফতারে অভিয়ান চলছে। অবশ্যই তাদের আইনের আওতায় আনার জন্য পুলিশি ততপরতা বাড়ানো হচ্ছে। অপরাধ করে কেউ ছাড় পায়নি ওরাও পাবে না।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*