সংবাদ শিরোনামঃ

চট্টগ্রাম জেলা সৎসঙ্গের উদ্যোগে শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্রের আবির্ভাব মহোৎসব সম্পন্ন

যুগপুরুষোত্তম পরপ্রেমময় শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্রের ১৩১তম শুভ আবির্ভাব মহোৎসব নগরীর দেওয়ানজী পুকুর লেইন, রহমতগঞ্জ চট্টগ্রাম জেলা সৎসঙ্গের উদ্যোগে গত ১৪, ১৫ ও ১৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, শনিবার ও রবিবার ৩ দিন ব্যাপী বিভিন্ন মাঙ্গলিক কর্মসূচির মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। উৎসবের সমাপনী দিনে প্রতিঋত্বিক অধ্যাপক সুধীর রঞ্জন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও পরিষদের সাধারণ সম্পাদক লায়ন শংকর সেনগুপ্তের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মহতী ধর্মসভায় শুভ উদ্বোধক ছিলেন বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড চট্টগ্রামের প্রধান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন। মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্জ্বল করেন সহ-প্রতিঋত্বিক তপন চক্রবর্ত্তী (ভারত)। প্রধান বক্তা ছিলেন অধ্যাপক স্বদেশ চক্রবর্ত্তী। বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা সৎসঙ্গ নির্বাহী পরিষদের কার্যকরী সভাপতি মেঘনা ব্যাংকের ডাইরেক্টর সজীব কুমার সিংহ রুবেল, যুগ্ম সম্পাদক প্রিয়তোষ চৌধুরী, সহ-সম্পাদক অমল দাশ উৎসব উদ্যাপন পরিষদের আহ্বায়ক অনিল চন্দ্র পাল ও সদস্য সচিব বিভু চক্রর্ত্তী, বিপ্লব কুমার দে, দীলিপ ধর, রূপক ভট্টাচার্য, এডভোকেট বিশ্বজিত দাশ ও ঢাবি সৎসঙ্গ শাখার সম্পাদক রুবেল দাশ। অন্যান্য অতিথি ও আলোচকবৃন্দের মধ্যে ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর জন্মষ্টমী উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রতœাকর দাশ টুনু, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি অজিত কুমার দাশ, বিশ্বজিত কুমার দেব, প্রকৌশলী প্রবীর কুমার দে প্রমুখ। শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্রের ভাবাদর্শে ধর্ম ও মানবতা শীর্ষক ধর্ম সম্মেলনে বক্তারা বলেন, শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকূলচন্দ্রের প্রতিষ্ঠিত সৎসঙ্গের কর্মধারা ও তাঁর বাণী সমাজে শান্তি প্রতিষ্ঠায় দিশারী হয়ে কাজ করছে। মানবিক মূল্যবোধ বিকাশে বিশ্বের অগণিত ভক্তের কাছে তাঁর বাণী অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। ধর্মসভা শেষে উজ্জ্বল দত্তের সঞ্চালনায় সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ, মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ভক্তদের মাঝে প্রসাদ বিরতণ করা হয়।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*