সংবাদ শিরোনামঃ

আশুলিয়ায় ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার হওয়া মরদেহের পরিচয় মিলেছে।

আজম সরকার,সাভারঃ শিল্পাঞ্চল সাভারের আশুলিয়ায় তুরাগ নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার হওয়া দু’শিক্ষার্থীর মরদেহের পরিচয় মিলেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহতের স্বজনরা মর্গে গিয়ে মরদেহগুলো শনাক্ত করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। জানা গেছে দুজন ধানমন্ডি রোটারি ক্লাব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী । ঘোষবাগ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে অবস্থিত ধানমন্ডি রোটারি ক্লাব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এমারত হোসেন জানান গতকাল ওই দু’শিক্ষার্থী স্কুলে আসার জন্য বাড়ি থেকে বের হলেও স্কুলে আসেনি। জানতে পেরেছি সন্ধ্যায় আশুলিয়া বাজারের পাশে তুরাগ নদী থেকে তাদের ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতেরা ঘোষবাগ এলাকার ইদ্রিসের বাড়ির ভাড়াটিয়া নুরুজ্জামানের মেয়ে সাথী আক্তার সোমা (১৫) ও কোন্ডলবাগ এলাকার হানিফের বাড়ির ভাড়াটিয়া মাসুদ মিয়ার মেয়ে আফরোজা আক্তার হেনা (১৬)। তারা দু’জনে বাবা-মায়ের সঙ্গে আশুলিয়া এলাকায় ভাড়া থেকে ঘোষবাগ এলাকায় অবস্থিত ধানমন্ডি রোটারি ক্লাব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতো বলে জানা গেছে। আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দিপু বাংলানিউজকে বলেন, নিহতরা দু’জনই গতকাল স্বজনদের সঙ্গে রাগ করে বাসা থেকে বের হয়েছিল বলে জানা গেছে। তবে কিভাবে তাদের মৃত্যু হয়েছে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলেই বুঝা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*