শিয়াসহ বিকৃত মতাদর্শীদের অপতৎপরতা প্রতিরোধে সুন্নি ওলামা-জনতাকে সচেতন করে তুলতে হবে

রাবেত্বায়ে ওলামায়ে আহলে সুন্নাত বাংলাদেশ এর উদ্যোগে ‘সুন্নি অঙ্গনে শিয়া তৎপরতাঃ চলমান পরিস্থিতি ও করণীয়’ শীর্ষক ওলামা-সুফি কনভেনশন আজ ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব ইঞ্জিনিয়ার আবদুল খালেক মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। রাবেত্বায়ে ওলামায়ে আহলে সুন্নাত বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান আল্লামা আবুল হাসান মুহাম্মদ ওমাইর রজভী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওলামা-সূফি কনভেনশনে প্রধান অতিথি ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত সমন্বয় কমিটির প্রধান সমন্বয়ক জননেতা মাওলানা এম এ মতিন। কনভেনশনে বক্তারা বলেন, ইসলামের নামে নানা দল-ফের্কা আজ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। মুসলামানদেরকে ঈমানহারা ও সত্যচ্যুত করতে নানাভাবে সক্রিয় রয়েছে শিয়া –ওয়াহাবিসহ বাতিল ফের্কাগুলো। যারা চার বিশুদ্ধ মাজহাব মানে না তারাই মূলত বাতিল ও পথভ্রান্ত। সাংগঠনিক প্রাতিষ্ঠানিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক উপায়ে এই সমুদয় বাতিল ফের্কাকে মোকাবেলা করতে হবে। শিয়াসহ বিকৃত মতাদর্শীদের অপতৎপরতা প্রতিরোধে সুন্নি ওলামা জনতাকে সচেতন করে তোলার তাগিদ দেন বক্তারা। সূফি কনভেনশনে প্রধান অতিথি মাওলানা এম এ মতিন বলেন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতই একমাত্র নাজাতপ্রাপ্ত দল। কুরআন-সুন্নাহকে মজবুতভাবে আঁকড়ে ধরে আছেন সুন্নি মতাদর্শীরা। অন্যদিকে বাতিল মতাদর্শীরাও থেমে নেই। নানা উপায়ে ওরা সক্রিয় রয়েছে। সুন্নি অঙ্গনেও ওরা সুকৌশলে ঢুকে পড়ছে। টাকার জোরে ওরা সুন্নি ওলামা জনতাকে তাদের দলে অন্তর্ভূক্ত করতে চায়। এখনই এই বাতিল ফের্কাগুলোকে চিহ্নিত করতে হবে এবং নিতে হবে গঠনমূলক ভূমিকা। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আহলে সুন্নাত সম্মেলন সংস্থা ওএসি বাংলাদেশ এর সাধারণ সম্পাদক শায়খুল হাদিস আল্লামা কাজী মুহাম্মদ মূঈন উদ্দিন আশরাফী। কনভেশনে মুখ্য আলোচক ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত সমন্বয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব এড. মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার। তিনি বলেন, শিয়া-সুন্নি বিভেদ বিভাজন, আজ নতুন নয়। অতি ভক্তি দেখাতে গিয়ে শিয়ারা পথভ্রান্ত। ওরা ইসলামের মূলধারা থেকে বিচ্ছিন্ন। এদের ঈমান-আক্বিদা তৎপরতার ব্যাপারে সুন্নি মুসলমানদেরকে সজাগ থাকতে হবে। আলোচক অধ্যক্ষ আল্লামা তৈয়ব আলী বলেন, সুন্নি অঙ্গনে বিভক্তির সুযোগে শিয়াসহ বাতিল ফের্কাগুলো তাদের তৎপরতা দিন দিন বাড়াচ্ছে। চার মাজহাব ও তকলিব যারা মানে না তারাই মূলত শিয়া ও সালাফি। এদের ঈমান আক্বিদা বিরোধী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে আজ সবাইকে সচেতন হওয়া প্রয়োজন। হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান পীরজাদা মাওলানা মুহাম্মদ গোলামুর রহমান আশরফ শাহ ঈমান আক্বিদার ভিত্তিতে সুন্নিয়ত প্রশ্নে সকল সুন্নি দরবার ও পীর মাশায়েখকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। সভাপতির বক্তব্যে আল্লামা আবুল হাসানা মুহাম্মদ ওমাইর রজভী বলেন, সুন্নি মতাদর্শীরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে শিয়াসহ বাতিল দলগুলোর অপতৎপরতা প্রতিরোধ করা সম্ভব। রাবেত্বায়ে ওলামায়ে আহলে সুন্নাত সমুদয় বাতিল ফের্কার ব্যাপারে সুন্নি ওলামা জনতাকে সচেতন করতে এই কনভেনশনের আয়োজন করেছেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। কনভেনশনে প্রধান অতিথি ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত সমন্বয় কমিটির প্রধান সমন্বয়ক জননেতা মাওলানা এম এ মতিন। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করে আহলে সুন্নাত সম্মেলন সংস্থা ওএসি বাংলাদেশ এর সাধারণ সম্পাদক শায়খুল হাদিস আল্লামা কাজী মূঈন উদ্দিন আশরাফী। মুখ্য আলোচক ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত সমন্বয় কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব এড. মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার। বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যক্ষ আল্লমা তৈয়ব আলী, অধ্যক্ষ আল্লামা বদিউল আলম রেজভী, আল্লামা নূর মোহাম্মদ আলকাদেরী, হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের চেয়ারম্যান পীরজাদা মাওলানা মুহাম্মদ গোলামুর রহমান আশরফ শাহ, মহাসচিব মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক শাহজাদা জিল্লুর রহমান হাবেবী। প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব মাওলানা আবুল কাশেম তাহেরী’র সঞ্চালনায় অতিথি ও আলোচক ছিলেন মাওলানা মঈন উদ্দিন রিজভী, মাওলানা সাঈদুল হক সাঈদ কাজেমী, মাওলানা ইমরান হোসাইন কাদেরী, মাওলানা ওয়াহেদুর রহমান কাদেরী, শাহজাদা আবু নওশাদ নঈমী, মাওলানা মুহাম্মদ নুরুল্লাহ রায়হান খান, মাওলানা সোহাইল উদ্দিন আনসারী, মাওলানা মুক্তার আহমদ রজভী, ছাত্রনেতা মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরী, মাওলানা সালেকুল মাওলা, মাওলানা মুহাম্মদ শাহজালাল, মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, মাওলানা মুহাম্মদ সোলাইমান আলী রজভী, মুহাম্মদ এমরান, মুহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, আবদুর রহিম রকি, সরফুদ্দিন আকবরী, মিনহাজ উদ্দিন সিদ্দিকী মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন প্রমুখ।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*