ধূমপান না করায় চার ব্যাক্তি বিশিষ্ট সম্মাননা পাচ্ছেন……………..

ধূমপান না করায় চার ব্যাক্তি বিশিষ্ট সম্মাননা পাচ্ছেন বাংলাদেশে অন্যতম ব্যবহারকারী মধ্যে হয়ছে তামাকজাত পণ্য আমাদের দেশের তামাকজাত পণ্য ব্যবহারকারী খুব কম বিশ্লেষকদের পরিসংখ্যান অনুসারে বাংলাদেশের ৪৩ শতাংশ প্রায় ৪ কোটি ১৩ লক্ষ প্রাপ্তবয়স মানুষ বিড়ি, সিগারেট এবং ধোঁয়ানিহীন তামাক সেবন করে তাকেন।তবে তদের খ্যাতির শীর্ষে আরোহণ করে ও সমাজের কিছু ব্যাক্তি ধূমপান থেকে বিরত তাকেন কিন্তু অন্যদের জন্য উদাহরণ সৃষ্টি করেন এই ব্যাক্তিরা।ধূমপান না করায় বাণিজ্যিক রাজধানী চট্রগ্রামের চারজন বিশিষ্ট ব্যাক্তিকে সম্মাননা দেওয়া হবে।যেই চারজন ব্যাক্তিত্ব হলেন চট্রগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন, চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি)উপাচার্য প্রফেসর ড:ইফতেখার উদ্দীন,চট্রগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও রুপালী ব্যাংকের পরিচালক আবু সুফিয়ান এবং অধ্যাপক ডাঃএকিউএম সিরাজুল ইসলাম।তামাক বিরোধী সাংবাদিক জোট আত্না ও উন্নয়ন সংগঠন ‘ইপসা’র পক্ষ থেকে এ সম্মানন দেওয়া হবে। ইপসার তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম কর্মকর্তা মোঃওমর শাহেদ বলেন,তামাক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমকে আরো শক্তিশালী করতে বাংলাদেশের সর্বস্তরের জনগণকে একহতে হবে। এ লক্ষ্যে আত্না ও ‘ইপসা’আয়োজনে আগামী শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় চসিকের কেবি আব্দুচ ছওার মিলনায়তনে তামাকমুক্ত চট্রগ্রাম শহর গড়তে আমাদোর করণীয় শীর্ষক’ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় অধূমপায়ী চার বিশিষ্ট ব্যাক্তিকে সম্মাননা প্রদান করা হবে।মোঃওমর শাহেদ জানান,তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন বাস্তবায়নে ইপসা ২০০৯ সাল থেকে চসিকের অন্তর্ভুক্ত এলাকায় তামাকমুক্ত করতে সহায়তা করে আসছেন এবং তামাক বিরোধী সাংবাদিকদের জোট ‘আত্না’ এ কার্যক্রমের অন্যতম অংশীদার।

About Jisan Ali

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*